সৌদিপ্রবাসীর স্ত্রীর বিষপানে ‘আত্মহত্যা’, শ্বশুর-শাশুড়ি পলাতক

::
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার রামদেব গ্রামে ঊর্মিলা খাতুন (২২) নামের এক গৃহবধূ বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে।

ঊর্মিলা খাতুন সৌদি প্রবাসী ইদ্রিস আলীর স্ত্রী।

স্বামীর পরিবারের মানসিক নির্যাতন সইতে না পেরে ঊর্মিলা আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
আর গৃহবধূ মারা যাওয়ার পর পর শ্বশুর-শাশুড়িসহ তার স্বামীর পরিবারের লোকজন ঘরে তালা মেরে পালিয়ে গেছেন।

এই ঘটনায় গৃহবধূর বাবা রেজাউল ইসলাম বাদী হয়ে মেয়ের শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নামে গাংনী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রোববার (১৩ আগস্ট) দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিষপান করেন ওই গৃহবধূ। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে করমদী সন্ধানী হাসপাতালে নেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার সময় পথে মারা যান তিনি।

উর্মিলার বাবা তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামের রেজাউল ইসলাম বলেন, দুই বছর আগে বিয়ে হয় আমার মেয়ের। স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর থেকেই শ্বশুর-শাশুড়ি তার ওপর মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। এই নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আমার মেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।