মিরপুরে পানি থেকে টেনে তোলা বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশুটি বেঁচে আছে

:: পাবলিক রিঅ্যাকশন রিপোর্ট
প্রকাশ: ৯ মাস আগে
ছবি: ভিডিও থেকে সংগৃহীত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ‘পানি থেকে পা ধরে টেনে তোলা’ নয় মাসের শিশু হোসেন বেঁচে আছে।

রাজধানীর মিরপুরে বৃহস্পতিবার রাতে প্রবল বৃষ্টিতে জমা পানিতে বিদুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের তিনজনসহ চারজনের মৃত্যু হয়। এ সময় শিশু হোসেনও আহত হয়। তাকে পা ধরে টেনে তোলার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায় আহত হোসেনের পা ধরে টেনে তোলেন একজন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, এক ব্যক্তি পানির মধ্যে ডুবে থাকা একটি শিশুর পা ধরে টেনে তোলেন। দেখে শিশুটির বয়স ৬-৭ মাসের মত বলে ধারণা করা হয়। তাকে টেনে তোলার পর আশপাশের মহিলারা তাকে বাসায় নিয়ে রসুনের তেল মাখায়। পরে যখন তার নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল তখন তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

শিশুটিকে উদ্ধার করা এক নারী জানান, চিকিৎকরা শিশুটিকে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি দেন। সেখান প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সকালে তাকে ছেড়ে দেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা। পরে আমরা তাকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে তার অন্যান্য আত্মীয়স্বজরা রয়েছেন। বর্তমানে তাদের কাছে রয়েছে শিশুটি।

সত্যতা নিশ্চিত করেন ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া। শিশুটির বাসা মিরপুরে কমার্স কলেজের কাছে ঝিলপাড় বস্তির বিপরীত পাশে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গতকাল রাতে বৃষ্টি চলাকালীন মিরপুর ১১ -এর শাহআলী থানাধীন কর্মাস কলেজের বিপরীত পাশের রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে চারজনের মৃত্যু হয়।