মসজিদুল হারাম ও নববীতে বিয়ে পড়ানোর অনুমতি দিল সৌদি আরব

:: পা.রি. ডেস্ক | পাবলিকরিঅ্যাকশন.নেট
প্রকাশ: ৫ মাস আগে

মক্কা ও মদিনায় ইসলামের দুটি পবিত্রতম স্থানে বিয়ে পড়ানোর অনুমতি দিয়েছে সৌদি আরবের কর্তৃপক্ষ। হজযাত্রী ও দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করতে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

দেশটির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদ এবং মদিনার মসজিদে নববীতে স্বাচ্ছন্দ্যের সঙ্গে ও সুসংগঠিতভাবে বিয়ে পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উভয় জায়গার পবিত্রতা বিবেচনায় শ্রদ্ধার সঙ্গে এ ধরনের আয়োজনের জন্য উদ্ভাবনী ধারণা নিয়ে আসতে সংস্থাগুলোর জন্য ‘সুযোগ’ আছে।

সৌদি মাজউন মুসায়েদ আল জাবরি (বিবাহ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত) বলেন, ইসলামে মসজিদে বিয়ে পড়ানোর অনুমতি আছে।

তিনি বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) মসজিদে সাহাবীর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছেন বলে জানা যায়। তিনি আরও বলেন, মদিনার স্থানীয়দের মধ্যে আগে থেকেই মসজিদে নববীতে বিয়ে পড়ানোর চল আছে।

আল জাবরি বলেন, এর পেছনে বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। তিনি বলেন, স্থানীয়দের কেউ কেউ হবু দম্পতির বেশিরভাগ আত্মীয়দের আমন্ত্রণ জানান। অনেক সময় হবু কনের পরিবার এতো আমন্ত্রিতদের স্থান সংকুলানের জন্য মসজিদে নববী বা কাবায় (ইসলামে তৈরি প্রথম মসজিদ) বিয়ের আয়োজন করেন। তার দাবি, অনেকের বিশ্বাস, মসজিদে বিয়ে করলে সৌভাগ্য আসে।

আল জাবরি বলেন, বিয়েতে অংশগ্রহণকারীদের যে সব নিয়ম মেনে চলতে হবে তার মধ্যে রয়েছে—নামাজে বিঘ্ন ঘটায় এমন উচ্চ শব্দ পরিহার করা, জায়গাটির পবিত্রতাকে গুরুত্ব দেওয়া এবং অতিরিক্ত কফি, মিষ্টি বা খাবার এড়ানো।

সৌদি আরবের অভ্যন্তরে এবং বাইরে থেকে লাখ লাখ মুসলমান প্রতি বছর ওমরাহ পালন করতে মক্কায় মসজিদে হারাম ও মদিনায় মসজিদে নববীতে যান এবং অন্যান্য ইসলামি দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করেন।