তুমি তো ফেসবুকের এমপি হয়ে গেছো, সুমনকে প্রধানমন্ত্রী

:: পাবলিক রিঅ্যাকশন রিপোর্ট | পাবলিকরিঅ্যাকশন.নেট
প্রকাশ: ৫ মাস আগে
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ব্যরিস্টার সুমন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হবিগঞ্জ-৪ (চুনারুঘাট-মাধবপুর) আসন থেকে জয়ী স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাক্ষাত পেয়েছেন। 

এসময় সুমনকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তোমাকে তো ফেসবুক থেকে চিনি। তুমি তো ফেসবুকের এমপি হয়ে গেছো ব্যারিস্টার সুমন।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের সঙ্গে এক মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। পরে গণভবনের গেইটে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা। এ সময় সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন তার সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য সাংবাদিকদের সামনে ব্যক্ত করেন।

ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আজ আমার জন্য একটা শুভ দিন। প্রধানমন্ত্রীর সামনে বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ পেয়েছি। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি, যারা নৌকা নিয়ে পাস করে আসছেন তারা হচ্ছেন আপনার রেগুলার ফোর্স, আর আমরা যারা স্বতন্ত্র থেকে পাস করে আসছি তারা হচ্ছি রিজার্ভ ফোর্স। এই দুই ফোর্সই কাজ করবে দেশের জন্য, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সবই আমার। এর পর তো আর কোনো বক্তব্য থাকে না।’

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন, সরকারি দলের এমপিদের অনেক ক্ষেত্রে প্রতিবাদ করা বা বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ কম থাকে। আমরা যেহেতু স্বতন্ত্র প্যাটার্নে আছি সেহেতু সরকারের ভালো কাজগুলোর প্রশংসার পাশাপাশি মন্দকাজের প্রতিবাদ করতে পারব স্ট্রংলি। সেদিক থেকে তিনি আমাদের বেশি স্বাধীনতা দিয়েছেন।’ সুমন বলেন, ‘নেত্রী একটা কথা বলেছেন আমাকে যে, তোমাকে তো ফেসবুক থেকে চিনি। তুমি তো ফেসবুকের এমপি হয়ে গেছো।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বলেছি, সরকারে না থাকলেও আমরা তো আপনার সঙ্গে আছি। আপনার সঙ্গে থাকব। এখন আমাদের পুরা গার্জিয়ানশিপ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে।’

স্বতন্ত্র এই এমপি বলেন, ‘আমরা তো বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে কাজ করি। আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। আমাদের দুইটা জায়গা সেটেল্ড করা। আমরা একই মায়ের সন্তান এবং আমরা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক।’

গত ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে হবিগঞ্জ-৪ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন ব্যারিস্টার সুমন। তার প্রতীক ছিল ঈগল। ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী আসনটিতে ভোটার সংখ্যা ৫ লাখ ১২ হাজার ৪০৮। ভোট দিয়েছেন ২ লাখ ৪০ হাজার ৬৬৯ ভোটার। এর মধ্যে ব্যারিস্টার সুমন পেয়েছেন ১ লাখ ৬৯ হাজার ৯৯ ভোট। আর আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহবুব আলী নৌকা পেয়েছেন ৭৯ হাজার ৫৪৩ ভোট।