ট্রান্সজেন্ডার অপারেশন করতে গিয়ে জানলেন ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

:: পা.রি. ডেস্ক | পাবলিকরিঅ্যাকশন.নেট
প্রকাশ: ৫ মাস আগে

চেয়েছিলেন নারী থেকে পুরুষ হতে। করিয়েছিলেন স্তন অপসারণও। পরের ধাপে যখন আবারও লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য অপারেশন করাতে গেলেন তখনই জানা গেল এক অবাক তথ্য। ডাক্তার জানালেন, নারী থেকে পুরুষ হতে চাওয়া ওই ট্রান্সপার্সন পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) মার্কিন গণমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্ট এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রান্সজেন্ডার থেকে যাওয়া ওই ইতালির নাগরিকের নাম মার্কো। দেশটির রাজধানী রোমের একটি হাসপাতালে জরায়ু অপারেশনের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় তার গর্ভাবস্থার বিষয়টি শনাক্ত হয়েছে। এর আগে তিনি ম্যাস্টেক্টমি অর্থাৎ স্তন অপসারণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন।

বিচিত্র এ ঘটনাটি প্রথম আবিষ্কার করেছে ইতালির স্থানীয় পত্রিকা লা রিপাবলিকা। যেখানে বলা হয়েছে, মার্কো নামের ওই নারী বায়োলজিক্যালি শিশুটির মা হবেন। তবে আইনত তাকে শিশুটির পিতা হিসেবে রেজিস্ট্রার করা হবে। এ ধরনের ঘটনা ইতালিতে এটাই প্রথম।

অ্যান্ডোক্রিনোলজিস্ট ডা. জিউলিয়া সেনোফন্টে শিশুটির স্বাস্থ্য নিয়ে সতর্কবার্তা দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, হরমোন থেরাপি শিশুটির স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি তৈরি করতে পারে। এজন্য যত দ্রুত সম্ভব এটি বন্ধ করা দরকার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি জানান, যদি থেরাপি অবিলম্বে বন্ধ না করা হয়, তাহলে এর পরিণতি ভয়াবহ হতে পারে। কেননা শিশুটির অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বৃদ্ধির জন্য প্রথম তিন মাস বেশ গুরুত্বপূর্ণ সময়।

এদিকে অনাগত সন্তানের যাতে কোনো ক্ষতি না হয় সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নারী থেকে পুরুষে রূপান্তরিত হতে চাওয়া মার্কো। চিকিৎসকরাও মার্কো এবং শিশুটির নিরাপত্তার জন্য রূপান্তর প্রক্রিয়া স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, নারী থেকে পুরুষ হতে চাওয়ার প্রক্রিয়া এখনও পর্যন্ত মার্কো এবং শিশুটির ওপর কোনো খারাপ প্রভাব ফেলেনি।