আল্লামা দুবাগী ছাহেব কিবলাহ (রহ.)-এর ৩য় বার্ষিক ঈসালে সাওয়াব মাহফিল ১০ জুলাই

:: হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী ::
প্রকাশ: ১২ মাস আগে

বিলাতে অন্যতম ইসলাম প্রচারক ওলীয়ে কামিল হযরত আল্লামা মুফতি মুজাহিদ উদ্দীন চৌধুরী দুবাগী ছাহেব কিবলাহ (রহঃ) -এর ৩য় বার্ষিক ঈসালে সাওয়াব মাহফিল আগামী ১০ জুলাই (সোমবার) ঐতিহ্যবাহী লন্ডন ব্রিকলেন জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে।
উক্ত মাহফিল সফল করার লক্ষে আল্লামা দুবাগী (রহ.) ঈসালে সওয়াব মাহফিল কমিটির উদ্যোগে এক মতবিনিময় সভা গত ২৫ জুন (রোববার) সন্ধ্যা ৭টায় লন্ডনে আল্লামা জিল্লুর রহমান চৌধুরী দুবাগীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা অলিউর রহমান চৌধুরী দুবাগী, মুফতি মাওলানা সৈয়দ মাহমুদ আলী, মাওলানা আমিনুল ইসলাম জলঢুপী, হাফিজ নাজিম উদ্দিন, মাওলানা মহবুবুর রহমান চৌধুরী দুবাগী, আলহাজ্ব সেলিম রহমান, আলহাজ্ব মতিউর রহমান শাহী, আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম, মশিউর রহমান চৌধুরী মিটু, নিজাম উদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী লিটন, জুয়েল আহমদ ও মুহিবুর রহমান চৌধুরী তপু প্রমুখ।
আল্লামা দুবাগী ছাহেব (রহ.)-এর মাজার শরীফ জিয়ারতের মাধ্যমে শুরু হবে মাহফিলের কার্যক্রম। এরপর খতমে কুরআন ও দোয়ার মাধ্যমে শুরু হবে মূল অনুষ্ঠান। এতে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে খতমে খাজেগান, দালাইলুল খায়রাত শরীফের খতম, যিকর মাহফিল, বিষয়ভিত্তিক বয়ান ও স্মৃতিচারণমূলক আলোচনা। মাহফিলে সভাপতিত্ব করবেন আল্লামা দুবাগী ছাহেব (রহঃ)-এর সুযোগ্য উত্তরসূরী তাঁর বড় ছাহেবজাদা হযরত আল্লামা জিল্লুর রহমান চৌধুরী দুবাগী।
মাহফিলে ব্রিটেনের বিভিন্ন শহর থেকে আল্লামা দুবাগী ছাহেব (রহ:) এর ভক্ত ও মুরিদানসহ সর্বস্তরের মুসলমানদের সমাগম হবে বলে আয়োজকরা আশা প্রকাশ করেন। আগত মেহমানদের খাবারের আয়োজন করা হবে।
মাহফিলে বিভিন্ন দেশের প্রখ্যাত পীর-মাশায়িখ, আলিম-উলামা, ইসলামী চিন্তাবিদ, শিক্ষাবিদ, বিভিন্ন্ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব মাহফিলে উপস্থিত হবেন। মাহফিলকে সফল ও স্বার্থক করে তুলতে ঈসালে সওয়াব মাহফিল কমিটির পক্ষ থেকে সর্বস্তরের মুসলিম জনতার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, পীরে কামিল হযরত আল্লামা মুফতি মুজাহিদ উদ্দীন চৌধুরী দুবাগী ছাহেব কিবলাহ (রহ.) ১৯২৯ সালে বিয়ানীবাজার উপজেলার নিভৃত পল্লী দুবাগ গ্রামে তাঁর জন্ম। প্রায় শতবর্ষব্যাপী জীবন অতিবাহিত করে ২০২০ সালের ১০ই জুলাই শুক্রবার জুম্মার পূর্বক্ষণে আল্লামা দুবাগী ছাহেব (র.) লন্ডনে অসংখ্য ভক্ত বৃন্দকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে পরপারে পাড়ি জমান। লন্ডনের গার্ডেন্স অফ পিসে তাঁকে দাপন করা হয়। এ দীর্ঘ জীবনে তিনি দ্বীনের বহুমুখী খিদমত আঞ্জাম দিয়েছেন। সমাজের অসহায়-দুঃস্থ মানুষের সেবায় তাঁর রয়েছে বহুবিধ খিদমত। তিনি সারাটি জীবন মানুষকে আল্লাহর পথে আহবান করেছেন বিভিন্নভাবে। তিনি একজন সুলেখক ও সমাজ সংস্কারকও ছিলেন। ইলমে কিরাত, ফিকহ ও ইলমে হাদীসের খিদমতের পাশাপাশি তাযকিয়ায়ে নফস বা ইলমে তাসাওউফের ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করেছেন। অগণিত মানুষ তাঁর হাতে আল্লাহপ্রাপ্তির পথে এগিয়ে গেছেন। তিনি ওয়াজ, যিকিরের তা’লীম, খানকা মাহফিল ইত্যাদির মাধ্যমে মানুষের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করার সারাজীবন প্রচেষ্টা চালিয়ে গেছেন।।তাঁর মেধা ও মননের বহুমাত্রিকতাকে কাজে লাগিয়ে তিনি প্রাচ্যে ও পাশ্চাত্যে ইসলামের খিদমতে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন পুরো জীবন। বাংলাদেশে অবস্থানকালে একজন প্রথম শ্রেণীর মুহাদ্দিস হিসেবে ইলমে দ্বীনের খেদমত করেছেন। ১৯৭৮ থেকে একাধারে দীর্ঘ ৪২ বৎসর বিলাতে ইসলাম প্রচার ও প্রচারের কাজে আমৃত্যু নিরলসভাবে ব্যস্ত ছিলেন। ইসলামী শিক্ষা বিস্তারে তিনি দেশ-বিদেশে অনেক মসজিদ-মাদরাসাও প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি “লেস্টারের ছাহেব” হিসেবে খুব বেশি প্রসিদ্ধ ছিলেন। আল্লামা দুবাগী ছাহেব (রহ.) ১৯৮০ সালে লেস্টার শহরে “ইউকে আঞ্জুমানে আল ইসলাহ” প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৭৮ সালে যুক্তরাজ্যে তিনি সর্বপ্রথম জৈনপুরী/ফুলতলী মসলকের ভিত্তিস্থাপন করেন, তাঁর পূর্বে বিলাতে এ মসলকের কোন আলিম ছিলেন না।