আদালতে ধর্ষণের বর্ণনা দিলেন ধর্ষক

:: পা.রি. ডেস্ক | পাবলিকরিঅ্যাকশন.নেট
প্রকাশ: ৫ মাস আগে

চট্টগ্রামে চার বছর আগে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের দায়ে মো. ফরিদ (৪৬) নামের এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। ফরিদ নিজেই ধর্ষণের ঘটনা জানিয়ে আদালতে সাক্ষ্য দেন।

চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭-এর বিচারক ফেরদৌস আরা বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) আসামির উপস্থিতিতে এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আদালতের বেঞ্চ সহকারী কফিল উদ্দিন বলেন, আসামি নিজেই আদালতে সাফাই সাক্ষ্য দিয়েছেন। এ ছাড়া তদন্তকালে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন। তাই ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামি মো. ফরিদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

আদালত সূত্র জানায়, ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ পরিবার নিয়ে চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলায় শ্বশুরবাড়িতে থাকতেন। ২০২০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে রাগ করে সকালে চট্টগ্রাম শহরে আসেন। কিন্তু থাকার জায়গা না পাওয়ায় ওই দিন বিকেলে ঢাকায় নানার বাড়ি যান। ২৫ ফেব্রুয়ারি তাকে ফিরিয়ে আনতে ঢাকায় যান তার খালু মো. ফরিদ। পরের দিন তারা চট্টগ্রামে পৌঁছালে দুপুরের খাবার শেষে মেয়ে পরিচয় দিয়ে নগরের সদরঘাট থানা এলাকার একটি হোটেলে কক্ষ ভাড়া নেন তার খালু ফরিদ। পরে ওই কক্ষে একাধিকবার গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন ফরিদ।

ওই দিন সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল থেকে ফরিদকে গ্রেপ্তার করে সদরঘাট থানা পুলিশ। এ ঘটনায় সদরঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী নারী।

তদন্ত শেষে অভিযোগপত্র দেওয়া হলে ওই বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর ট্রাইব্যুনালে অভিযোগ গঠন করা হয়। এরপর শুরু হয় সাক্ষ্যগ্রহণ। আটজনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করেন আদালত।